ইজরাইলি মারণাস্ত্রে হামলা চালায় ভারত

14

পাকিস্তান সীমান্তে ভারতের বিমানবাহিনীর হামলায় ব্যবহার করা হয়েছে ইজরাইলি মারণাস্ত্র। ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর পক্ষ থেকে বিভিন্ন এলাকাভিত্তিক ওয়েবসাইট ও সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য জানানো হয়।

পাঁচটি যুদ্ধবিমান দিয়ে এ হামলা করা হয় বলে জানিয়েছে ভারতীয় নিরাপত্তা রক্ষাবাহিনী। তারা এসময় আরো জানায় মিরাজ-২০০০ নামের বিমান থেকে ভারতীয়রা বোমা নিক্ষেপ করে। এই বোমাগুলোর একেকটির ওজন ছিলো ১ হাজার কেজি। সূত্র আরো জানায়, জিপিএসের মাধ্যমে এ বোমাগুলো পূর্ব নির্ধারিত স্থানাঙ্কে হামলা করতে সক্ষম। সেই সঙ্গে এ বোমাগুলো কোনো বিপরীত শক্তি দ্বারা আক্রান্ত হয়ে পথভ্রষ্ট হয় না।

এ হামলায় পাকিস্তানের পক্ষ থেকে কোন হতাহতের কথা অস্বীকার করা হলেও, ভারতের দাবি একটি বড় সংখ্যার জঙ্গী এসময় নিহত হয়েছে।

পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র মেজর জেনারেল আসিফ গফুর বলেন, ভারতীয় বিমানগুলো পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের মুজাফারাবাদ অঞ্চলে হামলা করে।

ভারতের পররাষ্ট্র সচিব বিজয় গোখলে সাংবাদিকদের বলেন, জইশ-ই-মোহাম্মদের ক্যাম্প টার্গেট করে এই হামলা করা হয়েছে। তারা জানিয়েছেন আরেকটি হামলার কথাও চলছিল।

আপডেট
২৭-০২-২০১৯, ২২:৫৭
ইজরাইলি মারণাস্ত্রে হামলা চালায় ভারত
israyel
পাকিস্তান সীমান্তে ভারতের বিমানবাহিনীর হামলায় ব্যবহার করা হয়েছে ইজরাইলি মারণাস্ত্র। ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর পক্ষ থেকে বিভিন্ন এলাকাভিত্তিক ওয়েবসাইট ও সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য জানানো হয়।

পাঁচটি যুদ্ধবিমান দিয়ে এ হামলা করা হয় বলে জানিয়েছে ভারতীয় নিরাপত্তা রক্ষাবাহিনী। তারা এসময় আরো জানায় মিরাজ-২০০০ নামের বিমান থেকে ভারতীয়রা বোমা নিক্ষেপ করে। এই বোমাগুলোর একেকটির ওজন ছিলো ১ হাজার কেজি। সূত্র আরো জানায়, জিপিএসের মাধ্যমে এ বোমাগুলো পূর্ব নির্ধারিত স্থানাঙ্কে হামলা করতে সক্ষম। সেই সঙ্গে এ বোমাগুলো কোনো বিপরীত শক্তি দ্বারা আক্রান্ত হয়ে পথভ্রষ্ট হয় না।

এ হামলায় পাকিস্তানের পক্ষ থেকে কোন হতাহতের কথা অস্বীকার করা হলেও, ভারতের দাবি একটি বড় সংখ্যার জঙ্গী এসময় নিহত হয়েছে।

পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র মেজর জেনারেল আসিফ গফুর বলেন, ভারতীয় বিমানগুলো পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের মুজাফারাবাদ অঞ্চলে হামলা করে।

ভারতের পররাষ্ট্র সচিব বিজয় গোখলে সাংবাদিকদের বলেন, জইশ-ই-মোহাম্মদের ক্যাম্প টার্গেট করে এই হামলা করা হয়েছে। তারা জানিয়েছেন আরেকটি হামলার কথাও চলছিল।

এদিকে ভারতীয় সেনাবাহিনীকে ইজরাইলের অস্ত্র সরবরাহ করার ইতিহাস বেশ পুরনো। ধারণা করা হয় যে, প্রতিবছর এই দুই দেশের ভেতর এক বিলিয়ন ডলারের অস্ত্র লেনদেন হয়। বিগত দুই বছরে এই দুইটি দেশের মধ্যে অনেকগুলো জয়েন্ট ড্রিল হয়েছে।