২৪ ঘণ্টার মধ্যে অন্তত ৭ ঘণ্টা ঘুম চাই। নিজেকে সেটা বুঝে সময় বের করে নিতে হবে। আদর্শ ঘুমের সময় রাত ১০–১১টার মধ্যে হওয়া উচিত। 

রাতে কৃত্রিম আলোর সামনে বেশিক্ষণ থাকলে শরীরের মেলাটোনিন হরমোন নিঃসরণে বাধার সৃষ্টি হয়। এই হরমোন ঘুম আসতে সাহায্য করে। শরীরে স্বাভাবিক ভাবে মেলাটোনিন হরমোন নিঃসরণ না–‌হলে সহজে ঘুম আসে না। স্ট্রেসমুক্ত থাকতেও ঘুম খুব জরুরি। স্ট্রেসমুক্ত থাকতে কর্টিসল হরমোন নিঃসরণ হওয়া দরকার।

পর্যাপ্ত ঘুম না হলে স্ট্রেস বাড়বে
ক্লান্তি ভাব, খিটখিটে মেজাজ, কাজের গতি কমে যাবে । হরমোনের কাজে ব্যাঘাত ঘটবে
মানসিক অশান্তি বাড়বে। পরিশ্রম করতে পারবেন না, তাড়াতাড়ি রেগে যাবেন
ভুলে যাবেন।

ভাল ঘুম চাইলে
 রাত ১০–১১টার মধ্যে ঘুমোতে যান
 টানা অন্তত ৭ ঘণ্টা ঘুমোন
 কৃত্রিম আলো এড়িয়ে চলুন
 ভাল ঘুমে স্ট্রেস কমবে, স্মৃতিশক্তি বাড়বে, মুড ভাল থাকবে
 ডিপ্রেশন, উদ্বেগ কমবে

ভাল ঘুমে দরকার
 অল্প প্রোটিন, ফ্যাট, ক্যালশিয়াম, আয়রন, কার্বোহাইড্রেট–‌সমৃদ্ধ সহজপাচ্য খাবার
 ঘুমের আগে পেট–‌ভর্তি খাবার নয়
 প্রচুর চেল, ঘি, চর্বি, মশলাযুক্ত খাবার বর্জন
 শরীরে জলের পরিমাণ ঠিকঠাক চাই
 অনেকক্ষণ খালি পেটে থেকে একবারে বেশি পরিমাণ খেলে ঘুমে সমস্যা হবে 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here