সুন্দরবনে নুসরাত জাহান

প্রখর রোদ উপেক্ষা করেই সেলুলয়েডের নায়িকা নুসরত জাহানকে একবার চোখে দেখার জন্য শুক্রবার বসিরহাটের হিঙ্গলগঞ্জ বিধানসভার তিনটি সভায় তৃণমূল কর্মী-সমর্থকদের ভিড় উপচে পড়ল। দলের পক্ষ থেকে সকালের দিকে একটি এবং বিকালের দিকে পরপর দুটি জনসভার আয়োজন করা হয়েছিল। বিকালের দিকে সভায় দর্শকদের ভিড়ে তিল ধারণের জায়গা ছিল না। জনসভায় আসা কর্মী সমর্থকরা তাঁর কাছে সিনেমার ডায়ালগ শোনার আবদার করেছেন। সেলফি তোলার চেষ্টা করেছেন। মোবাইলে তাঁর ছবি ফ্রেমবন্দি করেছেন। যদিও তিনটি সভাতেই তিনি বেশিরভাগ সময় নুসরত রাজনৈতিক বক্তব্য রেখেছেন। 

এদিন টলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রীর প্রথম সভা ছিল সুন্দরবন অঞ্চলের হেমনগর উপকূলবর্তী থানার যোগেশগঞ্জ এলাকায়। বেলা এগারোটা থেকে জনসভায় আয়োজন করা হয়। সভাস্থলের কাছেই রায়মঙ্গল নদী। সেই নদীর পাড় দিয়ে কর্মী সমর্থকরা সভায় হাজির হন। এদিনের সভায় ভিড় উপচে পড়েছিল। শাড়ি পরে মঞ্চে হাজির হতেই তাঁকে কর্মী সমর্থকরা করতালি দিয়ে অভিবাদন জানান। তিনিও মঞ্চের একপ্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে কর্মীদের উদ্দেশে হাত নেড়ে, প্রণাম করে সৌজন্য বিনিময় করেন। যোগেশগঞ্জের সভায় তিনি বলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দেশের উন্নয়ন, সমাজের উন্নয়নের জন্য কাজ করছেন। সাধারণ মানুষের কর্ম সংস্থানের জন্য তিনি চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তাঁর এই কাজের জন্য আমি তাঁকে সমর্থন করেছি। আপনাদের কাছে অনুরোধ করব, আপনারাও তাঁকে সমর্থন করবেন।