সাবেক প্রেমিক বা প্রেমিকার বন্ধু হয়ে ওঠার সেরা পাঁচটি পরামর্শ জেনে নিন :

হালকা চালে আলাপ করুন

আপনারা আর সঙ্গী নেই। তাই খুব বেশি কথা বলারও দরকার নেই। অর্থাৎ সাবেকের সঙ্গে নিজের সব কথা ভাগাভাগি করার প্রয়োজন নেই। মনে রাখা দরকার, এসব আমরা জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মানুষটির সঙ্গেই করে থাকি। চাই আবেগ নিয়ন্ত্রণ। তাই সাবেক প্রেমিক বা প্রেমিকার সঙ্গে অল্প কথা বলুন। যা বলবেন প্রফুল্লচিত্তেই বলবেন। কৌতুকও করতে পারেন। হাসিঠাট্টা উপভোগ করতে পারেন।

অতীত ঘাঁটবেন না

সাবেক প্রেমিক বা প্রেমিকার সঙ্গে বন্ধুত্ব গড়তে চাইলে ভুলেও অতীতের মধুর দিনগুলো স্মরণ করবেন না। সেই স্মৃতি উসকে দেবেন না। কারণ এতে আবার পুরোনো আবেগ ফিরে আসতে পারে। উঁকি দিতে পারে বেদনাবোধ। স্মৃতিকাতর হয়ে পড়তে পারেন দুজনই। আর পুরোনো স্মৃতি বারবার মনে এলে কখনোই সাবেকের সঙ্গে স্বাস্থ্যকর বন্ধুত্ব হবে না।

অন্তরঙ্গ হওয়ার চেষ্টা করবেন না

বন্ধুর সঙ্গে কি আপনি শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলেন? তো, এখন কেন এই ভুল করতে চাইবেন? সাবেক প্রেমিক বা প্রেমিকার সঙ্গে বন্ধুত্ব গড়তে চাইলে অন্তরঙ্গ হওয়ার চেষ্টা করবেন না। হয়তো মুহূর্তের কাছে আপনি আত্মসমর্পণ করতে পারেন, তবে তা ঠিক নয়। স্মরণ করুন, ঠিক কী কারণে আপনাদের বিচ্ছেদ হয়েছিল। সাবেক প্রেমিক বা প্রেমিকার সঙ্গে বন্ধুত্ব গড়তে চাইলে অবশ্যই আপনাকে সীমানার ভেতরে থাকতে হবে।

ব্যক্তিসীমানায় ঢুঁ মারবেন না

যেহেতু সাবেক সঙ্গীর সাথে আপনার প্রেমময় সম্পর্ক নেই, তাই তাঁর ওপর আগের মতো অধিকার খাটাতে পারেন না নিশ্চয়ই! সাবেকের ব্যক্তিগত সীমানা আছে। সেখানে ঢুঁ মারবেন না। সাবেক প্রেমিক বা প্রেমিকা যদি নতুন সম্পর্কে জড়ান, তবে তাতে সায় দিন। তাঁদের শখ, নতুন দক্ষতা সম্পর্কে জানুন। ব্যক্তিস্বাধীনতায় খবরদারি না করে দুজনের ব্যক্তিস্বাতন্ত্র্য গড়ে উঠতে সহায়তা করুন।

ফেরার চেষ্টা নয়

সাবেক সঙ্গীর প্রতি অনুভব জাগরূক থাকলেও ফেরার চেষ্টা না করাই ভালো। প্রত্যেক সম্পর্কের ভিত্তিই হলো আস্থা। সাবেক বয়ফ্রেন্ড বা গার্লফ্রেন্ডের সঙ্গে নতুন বন্ধুত্ব গড়তে গেলে আস্থা জরুরি। তাই পুনরায় ফেরার চেষ্টা নতুন সম্পর্ককে অস্বাস্থ্যকর করে তুলবে।

সম্পর্কের সম্বোধন যা-ই হোক, সেটাকে স্বাস্থ্যকর রাখা জরুরি। যদি সাবেক প্রেমিক বা প্রেমিকার সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক সুস্থ না হয়, তবে তা থেকে সরে যাওয়াই উত্তম

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here